হাওরে উদ্বোধন করা হলো ভাসমান পথ পাঠাগার

প্রকাশিত: 8:32 PM, October 30, 2020

আল নোমান শান্ত // 

কবি ও মরমি সাধকের সাধন সংগীতের এক বিশাল ভান্ডার সুনামগঞ্জ জেলা। হাওর বাওড়,পাহাড় নদী বেষ্টিত প্রাকৃতিক বৈচিত্রের এক অপূর্ণ ভান্ডার সুনামগঞ্জ জেলা।
(৩০ অক্টোবর) শুক্রবার সকাল ১১ঘটিকায় সুনামগঞ্জ জেলার ধর্মপাশা উপজেলার কান্দাপাড়া ফেরিঘাটে ধারাম হাওরে ভাসমান পথ পাঠাগারের শাখা উদ্বোধন করলেন সুনামগঞ্জের ধর্মপাশা উপজেলার শিক্ষক ও সাহিত্য অনুশীলনের সমন্বয়ক নাজমুল হায়দার। এ নিয়ে ছয়টি শাখা উদ্বোধন করা হয়েছে পথ পাঠাগারের।

এসময় উপস্থিত ছিলেন পথ পাঠাগারের সভাপতি নাজমুল হুদা সারোয়ার,মাসুদ রানা,শিক্ষক নাজমুল হায়দার,গীতিকবিতা সংগ্রাহক আবু ইউসুফ,গ্রামীণ বাউল গোলাম মোস্তফা,চাঁদের হাট পাঠাগারের সভাপতি শাকিল আহমেদ মুন,ফয়সাল আহমেদ,ধনা মিয়া সহ আরো অনেকেই।

এসময় ধর্মপাশা উপজেলার গীতিকবি সংগ্রাহক আবু ইউসুফ বলেন পথ পাঠাগারের এরকম ভাসমান ভ্রাম্যমাণ পাঠাগার স্থাপনের পরিকল্পনাটি বাংলাদেশে এই প্রথম।
এমন একটি ব্যতিক্রমধর্মী কার্যক্রম আমাদের মুগ্ধ করেছে। আমরা চাই পথ পাঠাগার এমন আরো ভিন্ন রকম কার্যক্রমের মাধ্যমে আরো সামনে এগিয়ে যাক।

এসময় পথ পাঠাগারের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি নাজমুল হুদা সারোয়ার বলেন – দিন দিন শিক্ষার্থীদের পাঠের অভ্যাস কমে যাচ্ছে। প্রযুক্তিনির্ভরতা,ফেসবুক আসক্তির কারণে শিক্ষার্থীরা পড়ার টেবিল থেকে দূরে সড়ে যাচ্ছে ক্রমাগত। আমরা চাই পথ পাঠাগারের মাধ্যমে ছাত্র শিক্ষক ও সাধারণ মানুষের মাঝে পাঠের অভ্যাস গড়ে তুলতে।

এ অঞ্চলটি হাওর বেষ্টিত হওয়ায় এ অঞ্চলের সাধারণ মানুষের একমাত্র যাতায়াত মাধ্যম ট্রলার।

এছাড়াও স্থানীয় সুত্রে জানা যায় এই ট্রলারটির মাধ্যমে স্কুল-কলেজে পড়ুয়া শিক্ষার্থীরা বেশিরভাগ যাতায়াত করে থাকে।
তাই আমি মনে করি এমন একটি ট্রলারে যাত্রীদের সুন্দর সময় কাটানোর জন্য বই-ই একমাত্র মাধ্যম হতে পারে। তাই যাত্রীদের সুবাদে পথ পাঠাগারের পক্ষ থেকে এমন একটি মহান উদ্যোগ।