দেবিদ্বার পৌরবাসি নাগরিক সুবিধা থেকে বঞ্চিত

প্রকাশিত: 10:39 AM, October 16, 2020

মোহাম্মদ উল্লাহ্ ভূইয়া(সোহাগ)
আমরা দেবিদ্বার পৌরসভার পৌরবাসি।যেখানে নাই পর্যাপ্ত বৈদ্যুতিক সরকারি বাতি, সন্ধ্যা নামলেই ভূতুড়ে এলাকায় পরিণত হয় রাস্তাঘাট। পানির কোনো লাইন নেই। নেই ময়লা-আবর্জনা ফেলার নির্দিষ্ট ভালো কোন ডাস্টবিন। শিশুদের বিনোদনের জন্য ভালো কোনো ব্যবস্থা নেই। এলাকায় ড্রেনেজ ব্যবস্থা না থাকায় অল্প বৃষ্টিতেই হাঁটুপানি জমে যায় রাস্তাঘাটে। আমরা সাধারন জনগন নিন্মআয়ের পরিবারগুলি পৌরসভায় অন্তর্ভুক্ত হওয়ার কারণে যথারীতি পৌরকর দিতে হচ্ছে আমাদের। জমি নিবন্ধন করতেও ফি দিতে হচ্ছে চার গুণ বেশি। আমাদের প্রশ্ন, ‘আমাদের লাভ কী? আমরা কেন সকল সুযোগ-সুবিধা পাব না?’
চলতি বাজেটেও পৌরসভা এলাকায় কর বাড়ানো হয়েছে। কোনো সুযোগ-সুবিধা না পেলেও আমাদের সেটা মেনে নিতে হচ্ছে। আমরা আরও অবাক হই পৌরসভার প্রায় এলাকায় এখনো গ্যাস সংযোগ যায় নাই।যদিও ইদানিং কচ্ছপ গতিতে কিছু রাস্তার মেরামতের কাজ হচ্ছে।কিন্তু অনেক রাস্তার বেহাল অবস্থা না মাটির না পিচডালা রাস্তা।আবার এ কথাও শুনা যায় আসছে বছর পৌর নির্বাচন হয় সম্ভাব্য মেয়র পার্থীও দেখা যাচ্ছে, আমার প্রশ্ন এই সম্ভ্যাব্য জনদরধী মানুষগুলো সাধারন জনগনের জন্য কি করেছে? নির্বাচন হওয়ার সময় হলে সাধারন জনগনকে পুজি করে কোটি টাকার বনে যাওয়ার সব ফয়দা লুটে। দেবিদ্বার পৌরসভার প্রায় শতকরা ৯০% মানুষ পৌরসুবিধা থেকে বঞ্চিত তার পরও আমরা বলি এবং বলতে হয় পৌরসভার নাগরিক। এই পৌরসভা আমাদের দরকার নাই।যে পৌরসভা জনপ্রতিনিধিহীন নামে মাত্র দেবিদ্বার পৌরসভা।আমরা একজন যোগ্য নেতৃত্বসম্পন্ন একটি সুষ্ট নির্বাচনের মাধ্যমে অতি দ্রুত একজন পৌর মেয়র চাই যে কিনা প্রতিদিন প্রতিক্ষন দেবিদ্বারের মাটিতে পা রেখে সাধারন জনগনের সেবা সাহায্য সহযোগীতা করে পাশে থাকবে।