শিবগঞ্জে সমাজসেবা অফিসার ও শেখ রাসেল শিশু প্রশিক্ষন কেন্দ্র”র হস্তক্ষেপে বন্ধ হলো বাল্যবিবাহ

প্রকাশিত: 1:27 PM, September 16, 2020

স্টাফ রিপোর্টার,সৌরাব আলী।।
চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ শেখ রাসেল শিশু প্রশিক্ষন ও পুনর্বাসন কেন্দ্রের হস্তক্ষেপে বন্ধ হয়েছে অত্র স্কুলের ৫ম শ্রেণীর ছাত্রী শিবগঞ্জ উপজেলার মোবারকপুর ইউনিয়নে দাইপুকুরিয়া গ্রামে মৃত আবু বাক্কার সিদ্দিকের মেয়ে মোসা: শাবনাজ।

শেখ রাসেল শিশু প্রশিক্ষন ও পুনর্বাসন কেন্দ্রের সোস্যালওয়ার্কার,আরফাতুন নেসা জানান, শেখ রাসেল শিশু প্রশিক্ষন ও পূনর্বাসন কেন্দ্রের ৫ম শ্রেণীর ছাত্রী মোসাঃশাবনাজ খাতুন(১৩) কে গত ১০ তারিখ সকালে তার মা তার খালার অসুন্থতা কথা বলে বাড়ি নিয়ে যাই কিন্ত কৌশলে নিয়ে গিয়ে গোপনে শাবনাজ”র (১৩) সোমবার রাতে বিয়ের ব্যবস্থা করেন দাইপুরিয়া ইউনিয়নে বাগবাড়ি মিয়াপুর গ্রামের বাবর আলির ছেলে জসিম এর সাথে । গোপন সুত্রে জানতে পেরে সমাজসেবা অফিসার এর হস্তক্ষেপে ইউনিয়ন সমাজকর্মী রাহাতজ্জামান ও দাইপুকুরিয়া ,মোবারকপুর ইউনিয়ন এর গ্রাম পুলিশ, স্থানীয় জনসাধারণের সহযোগিতায় বন্ধ করাে হয় বাল্যবিবাহ। বাল্য বিবাহ বন্ধ করে মেয়েটিকে শেখ রাসেল শিশু প্রশিক্ষন ও পুনর্বাসন কেন্দ্রে পাঠানো হয়।

শিবগঞ্জ উপজেলা সমাজসেবা অফিসার কাঞ্চন কুমার দাস এর কাছে মেয়েটির বাল্যবিয়ের বিষয়টি যানতে চাইলে তিনি বলেন,শাবনাজ খাতুন দির্ঘদিন থেকে শেখ রাসেল শিশু প্রশিক্ষন ও পুনর্বাসন কেন্দ্রের ভর্তি রয়েছে। আমরা তার সব রকম দেখাশুনা করছি।কিন্তু শাবনাজ”র মা কৌশলে বাড়িতে নিয়ে বাল্যবিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করছিলো।আমরা খবর পেয়ে বাল্যবিবাহ বন্ধ করে তাকে শেখ রাসেল শিশু প্রশিক্ষন ও পুনর্বাসন কেন্দ্রে নিয়ে এসেছি।যতদিন সে ১৮ বয়স না হবে সে শেখ রাসেল শিশু প্রশিক্ষন ও পুনর্বাসন কেন্দ্রেই থাকবে আমরা তার সব রকম দেখাশুনা করবো।