দেবিদ্বার টু চান্দিনা রাস্তার দুর্দশা, যেন দেখার কেউ নেই

প্রকাশিত: 11:11 PM, September 15, 2020

সৈয়দ এমরানুর রহমানঃ
কুমিল্লার দেবিদ্বার উপজেলা থেকে রাজধানীতে যাওয়ার সবচেয়ে সটকার্ট বাইপাস হলো দেবিদ্বার টু চান্দিনা সড়কটি । দেবিদ্বার থেকে এই সড়কটির দূরত্ব প্রায় ১৪ কিলোমিটার । সড়কটির পাশদিয়ে চলা কুমিল্লা-সিলেট আঞ্চলিক মহাসড়কের সংস্কার কাজের কারনে গত ১ বছর যাবত চট্রগাম ও ঢাকাগ্রামী ছোট যানবাহন গুলো চলাচলের কারনে বাড়তি চাপ সৃষ্টি এই সড়কটিতে ।

 

যার কারনে সড়কটির ৬০ শতাংশ অংশ খানা খন্দকে ভরপুর হয়ে যাছে । সরেজমিন ঘুরে দেখা যায়,দেবিদ্বার সার্কেল সহকারী পুলিশ সুপার কার্যালয়ের সামনে থেকে বাগুর এলাকার পর্যন্ত সড়কের প্রতি কিলোমিটার জুড়ে খানাখন্দকে ভরা । যার অভাবে দুর্ভোগে পোহাতে হচ্ছে এই সড়কটি দিয়ে যাতায়াত কারী যাত্রী,পণ্যবাহী সহ জরুরী যানবাহন গুলো । সড়কের কার্পেটিং উঠে শতাধিক ছোট-বড় খানাখন্দ সৃষ্টি হয়ে যান চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়ছে। বৃষ্টির পানি জমে থাকায় এসব খানাখন্দে আটকে পড়ছে যানবাহন।

 

চলাচল কারী সিএনজি অটো চালকরা কিছু কিছু স্থানে ইটের খোয়া দিয়ে জোড়াতালি দিলেও যান চলাচলে তা উপযোগী নয়। এ পথে হেঁটে চলাচলও বড় দায় সড়কটি দিয়ে বিভিন্ন বিদ্যালয়ের কয়েক হাজার শিক্ষার্থী ছাড়াও প্রতিদিন এই পথে হেঁটে ঝুঁকি নিয়ে স্থানীয় মানুষকে এই সড়কে যাতায়াত করতে হয়। বর্তমানে বেহাল সড়কে খানাখন্দে অহরহ যানবাহন উল্টে আহত হচ্ছে অনেকে। আবার জরুরি প্রয়োজনে অসুস্থ রোগী ও প্রসূতির পরিবহনে সীমাহীন দুর্ভোগ পোহাতে হয়।

 

এই রাস্তার অটোরিকশার সিএনজি চালক মামুন বলেন, সড়কটিতে গাড়ি চলাচল ও মানুষের যাতায়াতে অনুপযোগী হয়ে পড়ছে। খানাখন্দে গাড়ি উল্টে পড়ে ব্যাপক ক্ষতি হচ্ছে,মাঝে মধ্যে গাড়ির এক্সেল ভেঙ্গে গাড়ি উল্টে যাচ্ছে ।
যা উপার্জন করি তার বড় একটি অংশ গাড়ি মেরামতে ব্যয় করতে হচ্ছে আমাদের।

 

গত ৮ বছর ধরে সড়কের এই দুরবস্থা। অথচ আমাদের স্থানীয় সংসদ সদস্য সড়কটির এ অবস্থা দেখেও দেখেন না। পানিভর্তি গর্তে প্রতিদিনই যানবাহন উল্টে ছোটখাট দুর্ঘটনা ঘটছে। কষ্ট পাচ্ছি আমরা জনসাধরণ। এ দুর্ভোগের মধ্য দিয়ে এই পথে আমাদের চলাফেরা করতে হয়। এদিকে সড়কের বেহাল অবস্থার জন্য বাড়তি ভাড়া দিতে হচ্ছে যাত্রীদের । চালকরা বলছে সন্ধার পর জনপ্রতি ২০ থেকে ৩০ টাকা বেশি নিতে হচ্ছে কারন সড়কের বেহাল অবস্থা জ্বালানি বেশি লাগছে সেই সাথে যানবাহন বিকল হচ্ছে,এখানে আমাদের কিছুই করার নেই ।

 

দ্রুত রাস্তার সংস্কারের না হলে অতি শ্রীগই যাত্রীরা দুর্ভোগে পড়বে । এই সড়কে যাতায়াত কারী সকল যাত্রী ও চালকদের দাবী সংশ্রিষ্ট কতৃপক্ষের দ্রুত সময়ের মধ্যে সড়কটি সংস্কার করে দেবিদ্বার উপজেলার অর্থনৈতিতে ব্যাপক ভূমিকা রাখবে।