করিমগঞ্জে বালিখোলা পর্যটক প্রবেশ নিষিদ্ধ ঘোষণা করেন প্রশাসন ও পুলিশের মাইকিং

প্রকাশিত: 10:39 AM, July 14, 2020

মোঃ জনি হোসেন করিমগঞ্জ প্রতিনিধিঃ
প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাস এড়াতে সারা বিশ্বের মতো বাংলাদেশের পর্যটন খাতে ও ধস নেমেছে।এতে করিমগঞ্জ উপজেলায় ব্যাপক সতর্কতা মুলক ব্যবস্থা গ্রহণ করা করেছেন প্রশাসন।গত কয়েকদিনে পরিস্থিতি আর ওখারাপ হয়ে পড়াই বালিখোলা ইটনা,মিঠামইন,অস্টগ্রাম,নিয়ামত পুর নিকলী,চৌরাস্তা সহ বিভিন্ন পর্যটন এলাকায় এরই মধ্যে পর্যটকদের যাতায়াতে নিষেধাজ্ঞা নিষিদ্ধ ঘোষণা করা করেন করিমগঞ্জ থানা পুলিশ।একই সঙ্গে করিমগঞ্জে পর্যটক আগমণ জনসমাগম করতে দেয়া হচ্ছে না।

 

সোমবার(১৩ জুলাই)করোনা ভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধ হাওরের পানিতে অনাকাঙ্ক্ষিত ভাবে দুর্ঘটনা প্রতিরোধে (করিমগঞ্জ-তাড়াইলের) মাননীয় সংসদ সদস্য জনাব মুজিবুল হক চুন্নু এমপি,করিমগঞ্জ উপজেলার নির্বাহী অফিসার জনাব তাসলীমা নূর হোসেনের নির্দের্নায় বালি খোলা,ইটনা,মিঠামইন,অস্টগ্রাম,নিয়ামতপুর নিকলী,চৌরাস্তায় এলাকায় পর্যটকদের চলাচল নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হয়।

 

করিমগঞ্জ থানার তদন্ত অফিসার (ওসি) নাহিদ হাসান সুমনের নেতৃত্বে করিমগঞ্জ থানার বালি খলা ঘাটে দর্শনার্থীদের করোনা কালীন সময়ে জনসমাগম না হওয়ার লক্ষে এবং বিভিন্ন স্থান থেকে আসা দর্শনার্থীদের নৌকা ভ্রমনে নিরুৎ সাহিত করার জন্য বালিখলা প্রবেশ পথে নিয়ামতপুর রৌহা নামক স্থানে পুলিশ চেক পোস্ট ও বালিখোলা ঘাটে পুলিশ মোতায়েন করে ডিউটি তদারকি করেন করিমগঞ্জ থানার তদন্ত অফিসার (ওসি) নাহিদ হাসান সুমন।

 

করিমগঞ্জ উপজেলার নির্বাহী অফিসার জনাব তাসলীমা নূর হোসেন বলেন,পরবর্তী নির্দেশনা না দেয়া পর্যন্ত বালিখোলা,মিঠামইন,ইটনা,অস্ট গ্রাম,নিকলী এলাকায় পর্যটকদের চলাচলের ভ্রমন স্তগিত থাকবে সব পর্যটন ও বিনোদন কেন্দ্রে পর্যটক ভ্রমণে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে।এ নির্দেশনা যদি কেউ অমান্য করে তবে অমান্যকারীর বিরুদ্ধে মোবাইলকোর্ট পরিচালনা সহ আইনানুগভাবে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। জন
সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে করিমগঞ্জ থানা পুলিশ মাইকিংয়ে জানানো হয়েছে।

 

করিমগঞ্জ থানার তদন্ত (ওসি) নাহিদ হাসান সুমন বলেন,বালিখলায় দর্শনার্থীদের পিকনিক পার্টি,কনফারেন্স বা অন্য কোন জমায়েত ও সমাবেশের উদ্দেশ্যে প্রবেশ করতে না পারে সেজন্য চেকপোষ্ট বসানো হয়েছে।বালিখোলা প্রবেশদ্বারে নিয়ামতপুর,রৌহা,নামক স্থানে পুলিশের পক্ষ থেকে চেকপোষ্ট বসানো হয়েছে।

 

তিনি বলেন,বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়া করোনা ভাইরাসের প্রকোপ ঠেকাতে পর্যটন করিমগঞ্জ বালিখলায় বিশেষ নজরদারি শুরু করেছেন করিমগঞ্জ থানা পুলিশ। এরই অংশ হিসেবে এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।তিনি আরো বলেন,প্রবেশ দ্বারে বসানো চেকপোষ্ট দিবা-রাত্রি চালু থাকবে।কোনো দর্শনার্থীদের কোনো অবস্থাতেই প্রবেশ করতে দেওয়া হবেনা।সাধারণ পর্যটকরা ও আসতে থানা পুলিশের পক্ষথেকে নিরুৎসাহিত করা হবে এবং পর্যটন স্পটগুলোতে ভিড়না করা জমায়েত নাহওয়া অনুরোধ করেন যাতে দলবদ্ধ শিক্ষার্থী,পর্যটক,পিকনিক পার্টি নিয়ে প্রবেশ করতে না পারে সেজন্য এই চেকপোস্ট বসানো হয়েছে।