মঙ্গলবার, ২৭ জুলাই ২০২১, ০২:১৫ পূর্বাহ্ন
ব্র্যাকিং নিউজ :
সুনামগঞ্জের মধ্যনগরকে উপজেলা হিসেবে অনুমোদন দেওয়ায় আনন্দে ভাসছে মধ্যনগরবাসী খানসামা উপজেলায় লকডাউন বাস্তবায়ন ও বাজার মনিটরিং করছেন এসিল্যান্ড মারুফ হাসান ছাতকে লকডাউনের অযুহাতে সিএনজি- অটোরিকশা খাতে চলছে চরম নৈরাজ্য সাপাহারে কর্মহীন ও অস্বচ্ছল পরিবারে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ বিশ্বনাথে স্বাস্থ্যবিধি অমান্য করায় অর্থদণ্ড RAB-5 এর অভিযানে গাঁজাসহ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার-১ অবশেষে র‌্যাবের অভিযানে সেই ধর্ষক সোহাগ গ্রেফতার  বিরামপুর পৌরসভায় করোনাকালীন বিশেষ ওএমএস কার্যক্রমের উদ্ধোধন করলেন-পৌর মেয়র আককাস আলী বিশ্বনাথে মাদক সম্রাট তবারক’ আলী গ্রেফতার বিশ্বনাথে প্রেমিকের হাত ধরে উধাও দুই সন্তানের জননী

উভয় দেশ একে অপরের সঙ্গে যৌথভাবে কাজ করতে পারে – যা করতে এসেছিলাম, সেটাই করেছি জো বাইডেন

হাকিকুল ইসলাম খোকন,যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী প্রতিনিধিঃ
  • প্রকাশের সময় : শুক্রবার, ১৮ জুন, ২০২১

হাকিকুল ইসলাম খোকন ,যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী প্রতিনিধিঃ

চলতি বছরের জানুয়ারিতে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব নেওয়ার পর প্রথমবারের মতো রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের সঙ্গে মুখোমুখি বৈঠক করেছেন জো বাইডেন। স্থানীয় সময় বুধবার (১৬ জুন) দুপুরে প্রায় চার ঘণ্টা ধরে এই বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। এরপরই সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন প্রেসিডেন্ট বাইডেন।

 

সেখানে তিনি বলেন, ‘এখানে যা করতে এসেছিলাম, সেটাই করেছি। প্রথমত, উভয় দেশ একে অপরের সঙ্গে যৌথভাবে কাজ করতে পারে এমন ক্ষেত্র খুঁজে বের করা। যার মাধ্যমে দু’টি দেশের পারস্পারিক স্বার্থ রক্ষা হবে এবং বাকি বিশ্বের জন্যও সেটা লাভজনক হবে। দ্বিতীয়ত, সরাসরি যোগাযোগ। আমাদের বা আমাদের মিত্র দেশের গুরুত্বপূর্ণ কোনো স্বার্থের ক্ষতি করার কর্মকাণ্ড চালানো হলে যুক্তরাষ্ট্র এর জবাব দেবে।’ জো বাইডেন আরও বলেন, ‘আর তৃতীয়ত, যুক্তরাষ্ট্রের মূল্যবোধ ও বিভিন্ন অগ্রাধিকার সম্পর্কে জানানো এবং তিনি (পুতিন) নিজেই এসব আমার মুখ থেকে শুনেছেন।’ মার্কিন প্রেসিডেন্ট বলেন, ‘প্রায় চার ঘণ্টা ধরে বৈঠকটি অনুষ্ঠিত হয়েছে। সামগ্রিকভাবে বৈঠকটি ছিল ভালো এবং ইতিবাচক। সেখানে কোনো উচ্চবাচ্য হয়নি। সাংবাদিকদের সামনে প্রেসিডেন্ট বাইডেনের শুরুর কথাগুলোর শেষ অংশটা ছিল, ‘মুখোমুখি বৈঠক হওয়াটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ।

 

 

এতে তার (পুতিন) মনোভাব নিয়ে ভুল বোঝাবুঝির কোনো অবকাশ থাকে না।’ ‘আমি আমেরিকার জন্য, তবে রাশিয়ার বিরুদ্ধে নই’ সংবাদ সম্মেলনের একপর্যায়ে প্রেসিডেন্ট বাইডেন বলেন, ‘যেসব বিষয়ে যুক্তরাষ্ট্র ও রাশিয়ার মতপার্থক্য রয়েছে, সেসব বিষয়ে আমি চাই প্রেসিডেন্ট পুতিন যেন অন্তত এটা বুঝতে পারেন যে- (মতপার্থক্য থাকা ইস্যুতে) আমি কী বলছি, আর কেন বলছি। একইভাবে সেসব ইস্যুতে আমি ঠিক কী করছি এবং কেন করছি।’ ডেমোক্র্যাটিক এই প্রেসিডেন্ট বলেন, ‘আমি প্রেসিডেন্ট পুতিনকে এটাই বলেছি যে- রাশিয়া বা অন্য কারও বিরুদ্ধে আমাদের কোনো তৎপরতা নেই। আমাদের সকল কাজই যুক্তরাষ্ট্রের মানুষের জন্য।

 

মানবাধিকার ইস্যুতে আমরা সোচ্চার থাকবো।’ হোয়াইট হাউস বলছে, জেনেভার ভিলা লা গ্রেঞ্জে দুই নেতার ওই বৈঠক স্থানীয় সময় বেলা ১টায় শুরু হয়ে দুই ঘণ্টা পর্যন্ত চলে। পরে সংক্ষিপ্ত বিরতি শেষে আবারও শুরু হওয়া বৈঠক ৫টা ৫ মিনিটে শেষ হয়। এর কিছুক্ষণ পর প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন এবং ভ্লাদিমির পুতিন সাংবাদিক সম্মেলনে আসেন। সেখানে তারা দুই দেশের তলানিতে থাকা চিরবৈরী সম্পর্ক ও বৈশ্বিক বিভিন্ন ইস্যু নিয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাব দেন।

 

শুরুতে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন ভ্লাদিমির পুতিন। এ সময় জো বাইডেনের সঙ্গে বৈঠক অত্যন্ত ফলপ্রসূ হয়েছে বলে মন্তব্য করেন রুশ এই প্রেসিডেন্ট। পুতিন বলেন, তিনি মনে করেন না যে, তাদের মধ্যে কোনও ধরনের বৈরীতা আছে।

 

রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট বলেন, উভয় দেশের বহিষ্কৃত রাষ্ট্রদূতদের পুনরায় দুই দেশের দূতাবাসে ফেরাতে রাজি হয়েছেন তারা। তবে প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন পুতিনকে হোয়াইট হাউসে আমন্ত্রণ জানাননি বলে নিশ্চিত করেছেন রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট। পুতিন বলেছেন, তিনিও জো বাইডেনকে মস্কোতে আমন্ত্রণ জানাননি। বৈরী এই দুই দেশের সম্পর্ক গত কয়েক দশকের মধ্যে বর্তমানে সবচেয়ে তলানিতে পৌঁঁছেছে। গত মার্চে প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন রুশ প্রেসিডেন্টকে খুনি বলেও মন্তব্য করেছিলেন। মার্কিন নির্বাচনে হস্তক্ষেপ, সাইবার হামলা, ইউক্রেনের কাছ থেকে ক্রিমিয়া দখল নিয়ে দুই দেশের সম্পর্কে নজিরবিহীন অবনতির মাঝে মার্কিন প্রেসিডেন্টের অনুরোধে জেনেভায় বাইডেন-পুতিন সম্মেলন অনুষ্ঠিত হলো।

এই জাতীয় আরোও নিউজ দেখুন

ফেসবুকে আমরা আমাদের ফলোও করুন

© All rights reserved © 2018-2021 VORERCOMILLA.COM
ডিজানাইনার বাই এ,কে আজাদ
themesba-lates1749691102
error: Content is protected !!