মঙ্গলবার, ২৭ জুলাই ২০২১, ০২:৫০ পূর্বাহ্ন
ব্র্যাকিং নিউজ :
সুনামগঞ্জের মধ্যনগরকে উপজেলা হিসেবে অনুমোদন দেওয়ায় আনন্দে ভাসছে মধ্যনগরবাসী খানসামা উপজেলায় লকডাউন বাস্তবায়ন ও বাজার মনিটরিং করছেন এসিল্যান্ড মারুফ হাসান ছাতকে লকডাউনের অযুহাতে সিএনজি- অটোরিকশা খাতে চলছে চরম নৈরাজ্য সাপাহারে কর্মহীন ও অস্বচ্ছল পরিবারে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ বিশ্বনাথে স্বাস্থ্যবিধি অমান্য করায় অর্থদণ্ড RAB-5 এর অভিযানে গাঁজাসহ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার-১ অবশেষে র‌্যাবের অভিযানে সেই ধর্ষক সোহাগ গ্রেফতার  বিরামপুর পৌরসভায় করোনাকালীন বিশেষ ওএমএস কার্যক্রমের উদ্ধোধন করলেন-পৌর মেয়র আককাস আলী বিশ্বনাথে মাদক সম্রাট তবারক’ আলী গ্রেফতার বিশ্বনাথে প্রেমিকের হাত ধরে উধাও দুই সন্তানের জননী

লকডাউন খুললেই যাত্রীরা পাবেন ক্রয়কৃত অগ্রিম টিকিটের টাকা

সৌমেন মন্ডল, রাজশাহী ব্যুরো //
  • প্রকাশের সময় : বুধবার, ১৬ জুন, ২০২১

রাজশাহী প্রতিনিধি, রাজশাহী // 

পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়েতে ১১ জুন থেকে ১৪ জুন পর্যন্ত বিক্রয়কৃত অগ্রিম টিকিটের টাকা ফেরত দেওয়ার কথা থাকলেও তাতে ব্যর্থ হয় রেল কর্তৃপক্ষ। এই চলমান লকডাউনের ভেতরও যাত্রীরা টিকিট ফেরত দিতে এসে স্টেশনের কাউন্টার থেকে হতাশ হয়ে বাড়ী ফিরছেন। অপরদিকে প্রতিদিনই যাত্রীদের নানা প্রশ্ন ও বাক্যবানে পড়তে হচ্ছে দায়িত্বে থাকা স্টেশনের বুকিং সহকারী ও তথ্য সরবরাহকারীদের।

সূত্র জানায়, গত ১৩ জুন (রবিবার) ব্যাংক থেকে টাকা উত্তোলন করেই বাকি যাত্রীদের ক্রয়কৃত টিকিটের টাকা ফেরত দেবে পশ্চিমাঞ্চল রেল কর্তৃপক্ষ। কিন্তু সেই প্রতিশ্রুতি পূরণে ব্যর্থ হয় রেল কর্তৃপক্ষ।

ব্যর্থতার কারণ জানতে চাইলে রেলওয়ের প্রধান বুকিং সহকারী মো. আব্দুল মোমিন বলেন, গত ১৩ জুন (রবিবার) যাত্রীদের অগ্রিম টিকিটের টাকা ফেরত দেওয়ার কথা ছিল। সেই লক্ষ্যে রাজশাহী রেলওয়ের অর্থবিভাগে একটি আবেদনও করা হয়েছিল। এতে পশ্চিমাঞ্চলের রেলওয়ের জেনারেল ম্যানেজার (জিএম), চিফ কর্মাশিয়াল ম্যানেজার (সিসিএম), ডিভিশনাল কর্মাশিয়াল অফিসার (ডিসিও) সহ স্টেশন ম্যানেজার সকলেই তাতে সুপারিশ করেন। কিন্তু কিছু আইনগত জটিলতা ও অর্থ বিভাগের বাধ্যবাধকতায় সেই আবেদন নাকচ হয়ে যায়। অন্যদিকে, শুক্রবার ও শনিবার ব্যাংক বন্ধ থাকার কারণেও আমরা টাকা তুলে ফেরত দিতে পারি নাই। তাই প্রতিশ্রুতি মোতাবেক টাকাও ফেরত দিতে ব্যর্থ হই।

যাত্রীরা টিকিটের টাকা আদৌ ফেরত পাবেন কিনা তা জানতে চাইলে তিনি বলেন, অর্থবিভাগের সিদ্ধান্ত নাকচ হলেও চিন্তার কোনো কারণ নেই। রেল কর্তৃপক্ষের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী- লকডাউন খুললেই ট্রেন চালু হবে। তখন স্টেশনে টিকিটের বিক্রিত অর্থ থেকেই যাত্রীদের ক্রয়কৃত টিকিটের টাকা ফেরত দেওয়া হবে। এই কার্যক্রম লকডাউন খোলার একমাস পর্যন্ত চলবে।

রাজশাহী স্টেশনে অনুসন্ধান কেন্দ্রের দায়িত্বে থাকা সোহেল রানা ও মোছা. মুক্তি খাতুন জানান, প্রতিদিন অনেক মানুষ এই অনুসন্ধান কেন্দ্রে এসে টিকিট ফেরতের বিষয়ে জানতে চায়। আবার অনেকেই অনুসন্ধান কেন্দ্রের হটলাইন নম্বরে ফোন করে অনেক আজে-বাজে ভাবে গালমন্দ করেন। তারপরও আমরা তাদের ধৈর্য্যের সাথে তথ্য প্রদান করি। উর্ধ্বতনের কাছে থেকে পাওয়া তথ্য অনুযায়ী তাদের বলা হয়েছে- লকডাউন খুললেই ক্রয়কৃত টিকিটের টাকা ফেরত দেওয়া হবে। সবাই তার প্রাপ্য টাকা ফেরত পাবেন।

এবিষয়ে টেস্টনে দায়িত্বরত বুকিং সহকারী মো. সালাউদ্দিন বলেন, প্রতিদিনই প্রায় ২৫ থেকে ৩০ জন আসেন টিকিট ফেরত দিয়ে টাকা নেওয়ার জন্য। কিন্তু টাকা না থাকায় তাদের লকডাউনের পর আসতে বলা হয়েছে। লকডাউন খুললেই টিকিটের টাকা ফেরত পাবেন বলে জানানো হচ্ছে। তারপরও অনেকেই টাকা না পেয়ে খুব খারাপ আচরণ করে ফিরে যাচ্ছেন।

এবিষয়ে রাজশাহী স্টেশন ম্যানেজার মো. আব্দুল করিম বলেন, গত বৃহস্পতিবারের (১০ জুন) প্রায় ছয়লাখ টাকা ক্যাশ হাতে থাকায় তা শুক্রবার (১১ জুন) ভোর থেকে যাত্রীদের টাকা ফেরত দেয়া হয়েছিল। তিতুমীর ট্রেনের সব যাত্রীকেই টাকা ফেরত দেয়া হয়েছে। অন্যদিকে, বনলতা, পদ্ম, টুঙ্গিপাড়া, বরেন্দ্র ও ঢালারচর এক্সপ্রেসের কিছু যাত্রীদের টাকাও ফেরত দেয়া হয়। তবে টাকা শেষ হয়ে যাওয়ায় অধিকাংশ যাত্রীই বাকি থেকে যান। এখনো প্রায় ৩০ লাখ টাকার মতন ফেরত দিতে হবে অগ্রীম টিকিট ক্রয় করা যাত্রীদের।

কথা হয় স্টেশনে টিকিটের টাকা ফেরত নিতে আসা যাত্রী জাকির হোসেনের সাথে। তিনি জানান, এই লকডাউনেও স্টেশনে এসেছিলাম টিকিটের টাকা ফেরত নিতে। কিন্তু তা পেলাম না। স্টেশন থেকে বলা হচ্ছে টাকা নেই, লকডাউনের পর থেকে টাকা ফেরত দেওয়া হবে। তাই বাধ্য হয়ে ফিরে যেতে হচ্ছে।

প্রধান বুকিং সহকারী আব্দুল মোমিন জানান, মূলত: করোনায় লকডাউনের কারণেই আমরা যাত্রীদের ক্রয়কৃত অগ্রিম টিকিটের টাকা ফিরত দিতে পারি নাই। লকডাউন শেষ হয়ে গেলেই যাত্রীরা তাদের টাকা ফেরত পাবেন।

তিনি বলেন, যেহেতু এই ঘটনা রাজশাহী রেল স্টেশন কেন্দ্রিক, সেহেতু যাত্রীরা শুধুমাত্র রাজশাহী রেল স্টেশনে এসে ১১ জুন থেকে ১৪ জুনে কেনা টিকিট ফেরত দিয়ে টাকা নিতে হবে। কারণ, সকল স্টেশন এই লকডাউনের আওতায় ছিল না। শুধু রাজশাহী স্টেশনের ক্ষেত্রেই সার্ভারে এই সিস্টেমটি করা আছে। এছাড়াও যারা অনলাইনে টিকিট কিনেছিলেন তারা অবশ্যই হার্ডকপি অর্থাৎ টিকিটের প্রিন্ট কপি করে স্টেশনে জমা দিয়ে টাকা ফেরত নিতে পারবেন।

এই জাতীয় আরোও নিউজ দেখুন

ফেসবুকে আমরা আমাদের ফলোও করুন

© All rights reserved © 2018-2021 VORERCOMILLA.COM
ডিজানাইনার বাই এ,কে আজাদ
themesba-lates1749691102
error: Content is protected !!