ঢাকাFriday , 13 August 2021
আজকের সর্বশেষ সবখবর

ময়মনসিংহের মুক্তাগাছায় পিতার হাতে পুত্র খুন।

Link Copied!

গোলাম কিবরিয়া পলাশ, ময়মনসিংহ।
ময়মনসিংহের মুক্তাগাছায় পিতার হাতে শিশুপুত্র খুন – মুক্তাগাছায় ৫ মাসের শিশুপুত্রকে খুন করে পিতা এবং স্ত্রী ও নিজেকে আত্মহত্যার চেষ্টা। মুক্তাগাছা উপজেলার দাওগাঁও ইউনিয়নের চন্দনীআটা গ্রামে ১৩ আগষ্ট ২০২১ খ্রিঃ বৃহস্পতিবার এ ঘটনা ঘটে। ঘাতক পিতা শাজাহান চন্দনীআটা গ্রামের মৃত তমেজ আলীর পুত্র।

ঘাতক পিতা শাজাহানের মা জমেলা বেগম জানান, আজ ১৩ আগষ্ট ২০২১ খ্রিঃ বৃহস্পতিবার বিকাল ৫ টা থেকে আমার ছেলে শাজাহান অস্বাভাবিক আচরণ করতে থাকে এবং আমাকে ও তার স্ত্রী, শিশু পুত্র, ভাগিনা, শালিকাসহ সবাইকে নিয়ে ঘরে প্রবেশ করে দরজা বন্ধ করে বলতে থাকে তাকে কেউ মেরে ফেলবে।

শাজাহান একটি ধারালো ছুরি হাতে নিয়ে বসে থাকে এবং কাউকে বাহিরে বের হতে দিচ্ছিলনা বলেও জানান। রাতে আনুমানিক ১০ টার দিকে তার স্ত্রীর কাছ থেকে ৫ মাসের শিশুপুত্র শরীফকে কেড়ে নিয়ে হাতে থাকা ধারালো ছুরি দিয়ে গলায় আঘাত করলে ঘটনাস্থলেই শিশুটির মৃত্যু হয়। শিশুটিকে বাঁচাতে চেষ্টা করলে তার স্ত্রী জেসমিন বেগমকেও কুপিয়ে জখম করে নিজেকেও আত্নহত্যার চেষ্টা চালায়। ঘাতক শাজাহানের মা আরো জানান, ঈদের পর থেকে অস্বাভাবিক আচরণ করে আসছিল শাজাহান। সে বার বার বলতো কেউ তাকে মেরে ফেলবে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, শাজাহান এমন অস্বাভাবিক আচরণ অনেক আগে থেকেই করে আসছিল । তার বাবা পঙ্গু অবস্থায় থাকাকালীন সময়ে বাবাকে নিয়ে ভ্যান গাড়ি দিয়ে ভিক্ষাবৃত্তি করে সংসার ও তার পিতার চিকিৎসা করাত। তার বাবার মৃত্যুর পর থেকে তার এমন অস্বাভাবিক আচরণ বেড়ে যায়।

গতকাল ১২ আগষ্ট ২০২১ খ্রিঃ বুধবার দিবাগত রাত আনুমানিক ১০ টার দিকে তার মা জমেলা বেগম ও ভাগিনা শিমুল ঘরের দরজা খুলে বাহিরে এসে প্রতিবেশীদের ডাকাডাকি করতে থাকে। প্রতিবেশী লোকজন ঘটনাস্থলে উপস্থিত হওয়ার পূর্বেই তার শিশু পুত্রকে হত্যা ও স্ত্রীকে কুপিয়ে জখম করে এবং নিজেকেও আত্নহত্যা করার জন্য নিজের গলায় ছুড়ি দিয়ে আঘাত করে। ঘটনাস্থলে প্রতিবেশীরা এসে এমন ঘটনা দেখে পুলিশকে খবর দেন।

এ ঘটনায় মুক্তাগাছা থানার (ওসি) মাহমুদুল হাসান বলেন, সংবাদ পেয়ে আমরা ঘটনাস্থলে গিয়ে শিশুটির মরদেহ উদ্ধার করে লাশ মর্গে এবং ঘাতক শাজাহানকে আটক করে ও তার স্ত্রীকে জখম অবস্থায় পুলিশ হেফাজতে চিকিৎসার জন্য ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়। এ বিষয়ে তদন্ত সাপেক্ষে বিস্তারিত জানা যাবে এবং প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবেও বলে জানান।

error: Content is protected !!