ঢাকাThursday , 5 August 2021
আজকের সর্বশেষ সবখবর

শিবগঞ্জে বজ্রপাতে নিহতদের পরিবারকে সহায়তা প্রদান

Link Copied!

স্টাফ রিপোর্টার,সৌরাব আলী।।
চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ উপজেলার দক্ষিণ পাঁকার নয় রশিয়া এলাকায় বজ্রপাতে ১৭ জনের পরিবারকে তাৎক্ষনিক আর্থিক সহায়তা দেয়া হয়েছে। তাৎক্ষণিক বুধবার বিকেলে উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে নিহত রফিকুলের পরিবারের হাতে নগদ ২৫ হাজার টাকা প্রদান করা হয়। বাকিদের জেলা প্রশাসন কার্যালয় থেকে আর্থিক অনুদান প্রদানের প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেয়া হচ্ছে। এদিকে খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে ছুটে যান সংসদ সদস্য ডা. সামিল উদ্দিন আহমেদ শিমুল, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান সৈয়দ নজরুল ইসলাম, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাকিব আল-রাব্বি, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা প্রকৌশলী আরিফুল ইসলাম ও শিবগঞ্জ থানার ওসি ফরিদ হোসেনসহ অন্যরা।

 

এঘটনায় আহত হয় ১২ জন। বুধবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে উপজেলার পাঁকা ইউনিয়নের দক্ষিণ পাঁকার নয় রশিয়া এলাকায় টিনের ছাউনির পাশে এ বজ্রপাতের ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলেন- উপজেলার পাঁকা ইউনিয়নের দক্ষিণ পাঁকা তেররশিয়া গ্রামের মৃত সোহবুল হকের ছেলে রফিকুল ইসলাম (৬০), সদর উপজেলার মহারাজপুর ইউনিয়নের ডালপাড়ার সৈয়ব আলীর ছেলে তোবজুল (৭০), তোবজুলের স্ত্রী জমিলা (৫৮) ছেলে সাদল আলী (৩৫), জামালের মেয়ে লেচন (৫০), রফিকুলের ছেলে বাবলু (২৬), বাদলের ছেলে বাবু (২০) একই উপজেলার সূর্য নারায়ণপুরের ধুলু মিয়ার ছেলে সজীব (২২), সাহালাল বাবুর স্ত্রী মৌসুমী (২৫), কালুর ছেলে আলম (৪৮), মোস্তফার ছেলে পাতু (৪০), চর সূর্য নারায়ণপুরের টিপুর স্ত্রী বেবি (৩২) ফাটা পাড়ার গ্রামের সাদিকুলের স্ত্রী টকি বেগম (৩০), চর বাগডাঙ্গা গোঠাপাড়ার সাত্তারের ছেলে সহবুল (৩০), বাবুডাইং এলাকার মকবুলের ছেলে টিপু সুলতান (৪৫) ও সুন্দরপুর এলাকার সেরাজুলের ছেলে অসিকুল ইসলাম ডাকু (২৪)।

 

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাকিব আল-রাব্বি জানান, সদর উপজেলার আলিমনগর ঘাট এলাকা থেকে একটি নৌকাযোগে প্রায় ৩০ জন যাত্রী শিবগঞ্জ উপজেলার পাঁকা ইউনিয়নের বিশরশিয়া এলাকায় বৌভাত অনুষ্ঠানের যাওয়ার জন্য কনের বাবার বাড়িতে যাচ্ছিল। এ সময় পদ্মা নদীর নয় রশিয়া ঘাট এলাকায় পৌঁছে নৌকা থেকে নেমে বৃষ্টির সময় তারা ঘাটের টিনের ছাউনির নিচে আশ্রয় নেয়। ১২টার দিকে ছাউনির পাশে বজ্রপাত হলে ঘটনাস্থলেই ১৭ জন নিহত ও ১২ জন আহত হয়। স্থানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য ৯ জনকে সদর হাসপাতাল ও একজনকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে। বাকিদের স্থানীয়ভাবে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।

error: Content is protected !!