ঢাকাTuesday , 27 July 2021
আজকের সর্বশেষ সবখবর

খানসামায় জীবন সংগ্রামে নারী উদ্দোক্তা বাড়াতে ১নারী কসাইকে আর্থিক সহযোগিতা করলেন ইউএনও

Link Copied!

জয় রায় জয়ন্ত, খানসামা, দিনাজপুর প্রতিনিধি

খানসামায় জীবন সংগ্রামে নারী উদ্দোক্তা বাড়াতে ১ জন নারী কসাইকে আর্থিক সহযোগিতা দিলেন ইউএনও আহমেদ মাহবুব-উল ইসলাম।

আজ ২৭/০৭/২০২১ মঙ্গলবার খানসামা উপজেলা নির্বাহী অফিসে উপজেলার খামারপাড়া ইউনিয়নের জমিদারনগর আশ্রয়ণের বাসিন্দা মোস্তাফিজুর রহমানের সহধর্মিণী ব্রয়লার মুরগীর কাটা মাংস বিক্রেতা নারী কসাই মনিজা বেগমের হাতে আর্থিক সহযোগীতা ২৫ হাজার টাকার চেক প্রদান করেন।

এসময় মনিজা বেগম খুশিতে কেঁদে ফেলে বলেন, স্যার মেল্লা ভালো মানুষ, মোখ মেল্লা টাকা দিছে। এই টাকা দিয়া মেল্লা মুরগী আনিম, আর মোর সংসারোত অভাব থাকিবেনা। ইউএনও স্যারের আল্লাহ ভালো করুক।

 

এরপর মনিজা বেগমের বিষয়ে খোজ নিয়ে জানা যায়,
মনিজা বেগম দিনাজপুরের খানসামা উপজেলার খামারপাড়া ইউনিয়নের জমিদারনগর আশ্রয়ণের বাসিন্দা। ভবঘুরে মোস্তাফিজুর রহমানের সহধর্মিণী। অভাবের সংসার, স্বামী ভবঘুরে। দুই ছেলে, এক মেয়ের জননী মনিজা বেগম। অভাবের সংসারে একটু সুখের মুখ দেখার আশায় নিজের মেধা ও শ্রম দিয়ে সংসারের অভাব পূরণ করতে জমিদারনগর বাজারে ছোট একটি ছাউনি দিয়ে একটি ছোট চৌকি ফেলে দোকান শুরু করেন। শুরুটা করেন ১ টি ব্রয়লার মুরগী দিয়ে। বর্তমানে মনিজা প্রতিদিন পার্শ্ববর্তী বাজার পাকেরহাট থেকে চার-পাঁচটি করে ব্রয়লার মুরগী নিয়ে এসে তা কেটে বিক্রি করেন। মনিজার অক্লান্ত পরিশ্রমের পরেও পুঁজির অভাবে তার ব্যবসার পরিধি বাড়াতে পারছিলেন না। যার কারণে সংসারে দারিদ্র্য পিছু ছাড়েনা এমনটিই জানা যায়।

 

এ বিষয়ে খানসামা উপজেলা নির্বাহী অফিসার আহমেদ মাহবুব-উল-ইসলাম বলেন, দেশে এই ধরনের নারী উদ্যােক্তা সত্যিই দুর্লভ। খানসামা উপজেলার এই নারী ব্রয়লার মাংস বিক্রেতার জীবন সংগ্রাম সত্যিই প্রশংসার দাবী রাখে। দারিদ্র্যতার চরম শিখরে গিয়েও যে নারী মানুষের কাছে হাত না পেতে নিজের শ্রম দিয়ে সংসার পরিচালনার মত সাহস নিয়ে সংসারের হাল ধরেছে, তার হাতে এই অর্থ তুলে দিতে পেরে ভাল লাগছে। তার সার্বিক সফলতা কামনা করছি। আশা করছি আগামাীতে মনিজাকে দেখে নতুন নতুন নারী উদ্যোক্তা সৃষ্টি হবে।

উল্লেখ্য,মনিজার বিষয়ে গত কয়েকদিন আগে ফেসবুকে একটি পোস্ট করা হয়। সেই পোস্ট দেখে খানসামা উপজেলা নির্বাহী অফিসার আহমেদ মাহবুব-উল-ইসলাম সেখানের স্থানীয় সাংবাদিক চৌধুরী নুপুর নাহার তাজ এর কাছে মনিজার বিষয়ে খোঁজ খবর নেন।

 

সঠিক সব তথ্য জেনে আজ ২৭ জুলাই মঙ্গলবার বেলা ১টার দিকে উপজেলা নির্বাহী অফিসার কক্ষে মণিজা বেগমের হাতে ২৫ হাজার টাকার চেক প্রদান করেন

error: Content is protected !!