ঢাকাMonday , 5 July 2021

রামু তুলাবাগানে সন্ত্রাসী হামলায় মা-মেয়ে গুরুতর আহত। বাড়িঘর ভাঙচুর।

Link Copied!

আব্দুর রাজ্জাক বিশেষ প্রতিনিধি।
কক্সবাজারের রামু তুলাবাগানে সন্ত্রাসীরা দিন-দুপুরে দানু মিয়া সওদাগরের বাড়িতে হামলা চালিয়ে বাড়ি ঘর ভাংচুর ও লুটপাট চালায়। এই ঘটনায় মা-মেয়ে ও ছেলেসহ তিনজন গুরুতর আহত হয়েছে। অহতরা বর্তমানে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছে। গতকাল দুপুরে রামু উপজেলার খুনিয়া পালং ইউনিয়নের তুলাবাগানস্হ কালা পাড়া এলাকায় এই ঘটনাটি ঘটে।

 

ঘটনার বিবরণ ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, রামু উপজেলার খুনিয়া পালং ইউনিয়নের ২ নং ওয়ার্ডের তুলাবাগানস্হ কালা পাড়া এলাকার আব্দুর রহিমের পুত্র দানু মিয়া সদাগরের বাড়িতে গতকাল দুপুরে একই এলাকার অলি আহমদের পুত্র সাহাব মিয়া,আব্দুল জলিল,আব্দুল গফুর প্রকাশ টুলু, দিলোয়ারা, আয়েশা ও জোসনার নেতৃত্বে একদল সন্ত্রাসী দিন-দুপুরে হামলা চালিয়ে বাড়িঘর ভাঙচুর ও বাড়ির গাছ কেটে ফেলে। এসময় বাড়ির মালিকের স্ত্রী ও তার মেয়েরা সন্ত্রাসীদের বাধা দিতে গেলে সন্ত্রাসীরা তাদেরকে লোহার রড ও হাতুড়ি দিয়ে এলোপাতাড়ি পিটিয়ে গুরুতর আহত করে । আহতরা হলেন, হাসিনা আকতার (৩০), স্বামী দানু নিয়া, শাকিফা সুলতানা সাথী (১২) পিতা দানু মিয়া ও বাকপ্রতিবন্ধী রাশেদুল করিম সোহেল (১৬) পিতা দানু মিয়া সওদাগর। আহতদেরকে স্থানীয়রা রক্তাক্ত ও আশঙ্কাজনক অবস্থায় উদ্ধার করে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় তাদেরকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন। বর্তমানে আহতরা চমেক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

 

আহতদের মধ্যে গৃহকর্তার স্ত্রী হাসিনা আকতারের অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে।
এই ঘটনা দানু মিয়া সওদাগর বাদী হয়ে থানায় লিখিত এজাহার দায়ের করেন।

 

এই ব্যাপারে রামু থানার অফিসার্স ইনচার্জ এর সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, ঘটনার সংবাদ পাওয়া মাত্র রামু থানার একদল পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন এবং ঘটনার সাথে জড়িতদের দ্রুত গ্রেফতার করা হবে বলে তিনি জানান।

error: Content is protected !!